মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C

মুরাদনগর ডি.আর. সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়

  • সংক্ষিপ্ত বর্ণনা
  • প্রতিষ্ঠাকাল
  • ইতিহাস
  • প্রধান শিক্ষক/ অধ্যক্ষ
  • অন্যান্য শিক্ষকদের তালিকা
  • ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা (শ্রেণীভিত্তিক)
  • পাশের হার
  • বর্তমান পরিচালনা কমিটির তথ্য
  • বিগত ৫ বছরের সমাপনী/পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল
  • শিক্ষাবৃত্ত তথ্যসমুহ
  • অর্জন
  • ভবিষৎ পরিকল্পনা
  • ফটোগ্যালারী
  • যোগাযোগ
  • মেধাবী ছাত্রবৃন্দ

কুমিল্লা জেলাধীন মুরাদনগর উপজেলা সদরে ডি আর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়টি অবস্থিত। ১৮৬৪ সালে শ্রী দূর্গা রামলোধ তাঁর প্রায় ৪ একর নিজস্ব জমির উপর বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠা করেন। গোমতী নদীর তীরে এক মনোরম পরিবেশে এই বিদ্যালয়টি অবস্থিত। পূর্বে বিদ্যালয়টি ছিল L আকৃতির দ্বি-তল ভবন। বর্তমানে আরও একটি তিন তল বিশিষ্ট ভবন নির্মিত হয়েছে। প্রধান শিক্ষক, সহকারী প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষক সহ মোট ১৭ টি পদ রয়েছে। এছাড়াও ৩য় ও ৪র্থ শ্রেনীর মোট ০৭টি পদ আছে। এ বিদ্যালয়ে মোট শ্রেণী কক্ষ আছে ২০টি। এ ছাড়াও রয়েছে বিজ্ঞানাগার কক্ষ, বি.এন.সি.সি  ও স্কাউট কক্ষ,কম্পিউটার কক্ষ, শিক্ষক মিলনায়তন, প্রধান শিক্ষকের কক্ষ,অফিস কক্ষ ও গ্রন্থাগার। গ্রন্থাগারে যুগোপযোগী পর্যাপ্ত বই রয়েছে। নতুন ভবনের সামনে আছে বিশাল এক খেলার মাঠ। নতুন ভবনের উত্তরে আছে শহীদ মিনারও তদসংলগ্ন একটি দোতলা ছাত্রাবাস। বিদ্যালয় মাঠের পূর্ব দিকে একটি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও মুরাদনগর থানা অবস্থিত এবং উত্তরে রয়েছে মুরাদনগর আর্দশ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ও বাজার। বিদ্যুৎ সংযোগ থাকার কারনে স্কুলে সাপ্লাই পানির সু-ব্যবস্থা আছে। বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সহ উপজেলার বিভিন্ন ধরনের অনুষ্ঠান এ মাঠে অনুষ্ঠিত হয়। এটি ঐতিহ্যবাহী প্রতিষ্ঠান। এটি ১৯৮৭ সালে জাতীয়করন করা হয়। বর্তমানে বিদ্যালয়ের ফলাফল সমেত্মাষজনক। যে সব শূন্য পদ রয়েছে সেসব পদ পূরণ করা হলে বিদ্যালয়ের ফলাফল আরো ভাল হবে।  

১৮৬৪

 গোমতী নদী বিধৌত অত্র বিদ্যালয়টি বৃহত্তর কুমিল্লা জেলার অন্যতম প্রাচীন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। ১৮৫৮ খ্রিষ্টাব্দে, আজ থেকে প্রায় ১৫১ বৎসর পূর্বে M.E স্কুল রূপে সর্বপ্রথম যাত্রা শুরু করেছিল একটি ছনের ঘরে। ১৮৬৪ খ্রিষ্টাব্দে এটি H.E স্কুলে পরিণত হয়। ১৮৮৪ খ্রি. পর্যমত্ম এটির শোচনীয় অবস্থা ছিল। তদানীমত্মন মুন্সেফ রায় বাহাদুর কালি প্রসন্ন মুখার্জী সি.আই.ই মহোদয়ের প্রচেষ্টায় এবং স্থানীয় শিক্ষানুরাগী স্বগীয় দুর্গারাম লোধের আর্থিক সহযোগিতায় ১৮৮৬ খ্রিষ্টাব্দে পূর্নাঙ্গ হাই স্কুল হিসাবে যাত্রা শুরু করে। অবশ্য বহু ঘাত প্রতিঘাত এর ভিতর দিয়ে ১৯০২ খ্রিষ্টাব্দে স্থায়ীভাবে পুন: প্রতিষ্ঠিত হয়।

ঢাকার নবাব স্যার সলিমুল্লাহ বাহাদুর ও কলিকাতা শোভা বাজারের মহামান্য মহারাজা বিনয় কৃষ্ণ দেব বাহাদুর মহোদয়গনের আর্থিক সাহায্যে এবং প্রতিষ্ঠাতা  স্বগীয় দুর্গারাম লোধের একমাত্র উত্তরাধীকারী কৈলাশ চন্দ্র দত্ত মহাশয়ের এবং তদানীমত্মন সাব-রেজিষ্টার মৌলভী রকিব উদ্দিন আহম্মেদ সাহেব প্রমুখদের অক্লামত্ম পরিশ্রমে এটি একটি আর্দশ স্কুল হিসাবে পরিচিতি লাভ করে। স্কুলটিকে ১৯২০ খ্রিষ্টাব্দে কলিকাতা বিশ্ববিদ্যালয় স্থায়ী স্বীকৃতি প্রদান করে।

পাকিসত্মান প্রতিষ্ঠার পর ১৯৬০ খ্রীষ্টাব্দের পরে বহুমুখী শিক্ষা ব্যবস্থায় বিদ্যালয়টিকে DEVELOPMENT স্কীমেরঅমত্মর্ভুক্ত করে অর্থ বরাদ্দ প্রদান করা হয়। বরাদ্দকৃত অর্থ দ্বারা দ্বিতল ভবন নির্মান করা হয়।

১৯৭৮-৮০ খ্রিষ্টাব্দে বিদ্যালয়টিকে Pilot স্কীমের অমর্ত্মভুক্ত করে অর্থ বরাদ্দ প্রদান করা হয়। বরাদ্দকৃত অর্থ দ্বারা অসমাপ্ত School Building এর নির্মান কাজসহ ব্যায়ামাগার নির্মান করা হয়। ১৯৮৭ খ্রিষ্টাব্দে বিদ্যালয়টিকে জাতীয়করণ করা হয়।

পরবর্তীতে বিদ্যালয় সংলগ্ন স্থানে একটি দ্বিতল ছাত্রাবাস নির্মান করা হয়।  

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল
জনাব হযরত আলী 0 durgaram_school@yahoo.com

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল

 

মোট ছাত্র/ছাত্রীর সংখ্যা:

৭৫৭ জন।

 

ছাত্র/ছাত্রীর সংখ্যা (শ্রেণী ভিত্তিক)

 

৬ষ্ঠ শ্রেণী

৭ম শ্রেণী

৮ম শ্রেণী

৯ম শ্রেণী

১০ম শ্রেণী

১৮৮

১৬৮

১৫১

১২৪

১২৬

৯৪.৭৪%,

 

বর্তমান পরিচালনা কমিটির তথ্য :

এডহক কমিটি

ক্রমিক নং

সদস্যদের নাম

পদবী

০১

জনাব এম, কে নাজমূল হাসান ( নিঝুম)

সভাপতি

০২

জনাব মোঃ মফিজুল  ইসলাম

সদস্য সচিব

০৩

জনাব শরীফ নাসির উদ্দিন

শিক্ষক প্রতিনিধি

০৪

জনাব আবদুস সামাদ

অভিভাবক সদস্য

বিগত ৫ বছরের সমাপনী/পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল

বিগত ৫ বৎসরের সমাপনী পরীক্ষার ফলাফল :

 

২০০৬ খ্রিঃ

শ্রেণী

মোট ছাত্র-ছাত্রী

পাস

মমত্মব্য

৬ষ্ঠ ( ক)

৭০

৬৬

 

৬ষ্ঠ (খ)

১০৬

১০১

 

৭ম (ক)

৬০

৫৭

 

৭ম (খ)

৫৩

৫০

 

৮ম

৬১

৫৭

 

৯ম

৬৯

৬৪

 

১০ম

৬১

৬১

 

মোট

৪৮০

 

 

২০০৭ খ্রিঃ

শ্রেণী

মোট ছাত্র-ছাত্রী

পাস

মমত্মব্য

৬ষ্ঠ ( ক)

৭৭

৭২

 

৬ষ্ঠ (খ)

১৩২

১২৮

 

৭ম (ক)

৬০

৫৮

 

৭ম (খ)

৯৪

৯১

 

৮ম

১১৩

১০৯

 

৯ম

৮০

৭৬

 

১০ম

৬১

৫৮

 

মোট

৬১৭

 

 

২০০৮ খ্রিঃ

শ্রেণী

মোট ছাত্র-ছাত্রী

পাস

মমত্মব্য

৬ষ্ঠ ( ক)

৬৩

৬০

 

৬ষ্ঠ (খ)

৯০

৮৭

 

৭ম (ক)

৫৮

৫৩

 

৭ম (খ)

৯১

৮৭

 

৮ম

১০২

৯৮

 

৯ম

৭৬

৭২

 

১০ম

৫৪

৫৩

 

মোট

৫৩৪

 

 

২০০৯ খ্রিঃ

শ্রেণী

মোট ছাত্র-ছাত্রী

পাস

মমত্মব্য

৬ষ্ঠ ( ক)

৯৬

৯১

 

৬ষ্ঠ (খ)

১২২

১১৭

 

৭ম (ক)

৫৩

৪৯

 

৭ম (খ)

১০১

৯৪

 

৮ম

১৩৬

১৩২

 

৯ম

৯৬

৯২

 

১০ম

৭৪

৭২

 

মোট

৬৭৮

 

 

২০১০ খ্রিঃ

শ্রেণী

মোট ছাত্র-ছাত্রী

পাস

মমত্মব্য

৬ষ্ঠ ( ক)

৯৯

৯৫

 

৬ষ্ঠ (খ)

১১৩

১০৮

 

৭ম (ক)

৬৩

৬০

 

৭ম (খ)

৯৭

৯২

 

৮ম(ক)

৫৫

৫২

 

৮ম (খ)

৮০

৭৬

 

৯ম

১৫১

১৩৯

 

১০ম

৯৯

৯৩

 

মোট

 

 

 

শিক্ষাবৃত্তি তথ্যসমূহ

শিক্ষা বৃত্তির তথ্য :

২০০৫ সালে জুনিয়র বৃত্তি ০১ জন।

২০১১ সালে জুনিয়র বৃত্তি ০৬ জন ।

 

অর্জন :

২০০৭ ইং  সনে A+২টি। ২০০৮ সনে A+১টি।

 

ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা :

বিদ্যালয়ের শিক্ষার মান উন্নয়নের লক্ষ্যে বাসত্মব সম্মত শিক্ষাদান পদ্বতি অব্যাহত রাখব। ইন্টারনেট চালু করব। শ্রেনী ভিত্তিক দূর্বল ছাত্র-ছাত্রীদেরকে চিহৃিত করে বিশেষ পাঠদান চালু রাখব। গণিত ও ইংরেজি বিষয়ে অতিরিক্ত ক্লাস নিয়ে ছাত্র-ছাত্রীদের লেখা পড়ার মান উন্নয়ন করার চেষ্টা করব। অভিভাবকদের নিয়ে সভা করে মত বিনিময় করব। উপকরনের মাধ্যমে শিক্ষাদান পদ্বাতি অব্যাহত রাখব। 

মুরাদনগর থানা সংলগ্ন অবস্থিত।